Notice :
Welcome To Our Website...
হাতিরঝিলে ঘুরতে গেলে উত্ত্যক্তের শিকার

হাতিরঝিলে ঘুরতে গেলে উত্ত্যক্তের শিকার

রাজধানীর হাতিরঝিল ও আশপাশের এলাকায় দফায় দফায় অভিযান চালিয়ে গত ৯ দিনে ৩৮৮ কিশোরকে আটক করেছে পুলিশ। ঘুরতে আসা নগরবাসীদের উত্ত্যক্তের শিকার হতেন।

সম্প্রতি এক ব্যক্তি পুলিশ সদর দফতরের জনসংযোগ শাখার ফেসবুক পেজে অভিযোগ করেন, অবসরে বিনোদন এবং সুন্দরভাবে সময় কাটাতে মানুষ হাতিরঝিল এলাকায় যান। কিন্তু কিছু কিশোর তাদের হয়রানি করছে। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ২৭ জানুয়ারি থেকে শুরু হয় পুলিশের আটক অভিযান।

হাতিরঝিল থানার ওসি আব্দুর রশিদ বলেন, নগরে একটু বিনোদনের জন্য হাতিরঝিলের সড়ক ও লেকে শত শত মানুষ তাদের পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসেন। কিন্তু এক শ্রেণির কিশোর রয়েছে, যারা উচ্চ শব্দে মোটরসাইকেল চালিয়ে পরিবেশ নষ্ট করে। এদের মধ্যে কেউ কেউ তরুণীদের টিজ করে। তাদের মোটরসাইকেল চালানোর লাইসেন্সও নেই।

বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যার পর রাত ৮ টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ৪৫ জন কিশোরকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে পূর্বে কোনো মামলা আছে কিনা তা যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। পরে এদের অভিভাবকদের ডেকে মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হবে।

পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, আমরা চাই নগরবাসীরা বিনোদন নিয়ে স্বস্থিতে থাকুক। কিন্তু সপরিবারের বিনোদনের জন্য হাতিরঝিলে এসে কেউ হয়রানির শিকার হবেন-এমনটা হতে পারে না। এখানে গভীর রাত পর্যন্ত উচ্চ শব্দে মোটরসাইকেল চালানো হয়। হাতিরঝিলের বিনোদন পরিবেশ ঠিক রাখতে আমরা এক সপ্তাহ ধরে অভিযান চালিয়েছি।

এছাড়া হাতিরঝিলে পুলিশের টহল টিম রয়েছে। কেউ হয়রানির শিকার হলে পুলিশকে জানাতে অনুরোধ করা হয়েছে।পুলিশ সদর দপ্তরের গত ৮ দিনের (বুধবার বাদে) হিসাব অনুযায়ী হাতিরঝিলে আটক ৩৪৩ জন কিশোরের মধ্যে ৭১ জনের বিরুদ্ধে ডিএমপি অ্যাক্টে মামলা হয়েছে। ৩ জনের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ২৬৯ জন কিশোরের অভিভাবকদের থানায় ডেকে এনে মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। মুচলেকা অনুযায়ী প্রতি সপ্তাহে একবার করে প্রত্যেক অভিভাবককে হাতিরঝিল থানায় হাজির হয়ে তার সন্তান সম্পর্কে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 doorbin24.Com