Notice :
Welcome To Our Website...
মাঠে ফিরেই বাংলাদেশের জয়

মাঠে ফিরেই বাংলাদেশের জয়

করোনা পরবর্তী আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেই জয়ের স্বাদ পেলো বাংলাদেশ। সাকিব-হাসান-মুস্তাফিজের বোলিং তোপের পর অধিনায়ক তামিম ইকবালের ৪৪ রানের ওপর ভর করে ৬ উইকেটের বিশাল জয় পায় টাইগাররা। ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন সাকিব আল হাসান।

মিরপুর শের ই বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বুধবার (২০ জানুয়ারি) জয়ের জন্য ১২৩ রানের লক্ষে ব্যাট করতে নেমে ৪৭ রানের দুরন্ত শুরু শুরু এনে দেন তামিম-লিটন। ১৪ রানে লিটন আউট হলেও অন্য প্রান্ত আগলে রাখেন নতুন অধিনায়ক। কিন্তু দলীয় ১০ রান যোগ করে ব্যক্তিগত ১ রানেই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন নাজমুল হোসেন শান্ত।

২২.৫ ওভারে দলীয় ৮৩ রানের মাথায় আকিল হোসেনের বলে স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়ে ব্যক্তিগত অর্ধশত রানের স্বপ্ন জাগিয়েও মাঠ ছাড়তে হয় তামিম ইকবালকে। আউট হওয়ার আগে ৭ চারে ৪৪ রান আসে তামিমের ব্যাট থেকে।

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে রাজকীয় প্রত্যাবর্তনের দিনে সাকিব আল হাসান জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ার স্বপ্ন দেখালেও সেই আকিল হোসেনের বলেই ব্যক্তিগত ১৯ রান করে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে।

তবে বাকিটা সময় হেসে খেলেই জয় তুলে নেন টাইগারদের দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

৩৩.৫ ওভার খেলে ৯৭ বল হাতে রেখেই জয় নিয়ে মাঠে ছাড়েন তারা। মুশফিকের ব্যাট থেকে আসে ১৯ রান। রিয়াদ অপরাজিত থাকেন ৯ রানে। আকিল হোসেন নেন তিন উইকেট।

এরআগে, টস হেরে ব্যাট করতে নেমে সাকিব-হাসান মাহমুদ আর মুস্তাফিজের বোলিং তোপের মুখে মাত্র ১২২ রানেই সবকটি উইকেট হারায় সফরকারিরা। উইন্ডিজের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪০ রান করেন কাইল মায়ার্স।

এদিকে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সেরা বোলিংয়ের তকমাটা তুলে নেন সাকিব আল হাসান। ৭.২ ওভারে দুই মেডেন নিয়ে মাত্র ৮ রান দিয়ে শিকার করেন ৪ উইকেট। অন্যদিকে অভিষেকেই মনকড়া বোলিং করেন তরুণ পেসার হাসান মাহমুদ। ৬ ওভারে ২৮ রান দিয়ে এক মেডেন নিয়ে তার শিকার বানান ৩ উইকেট। আর ৬ ওভারে ২০ রান দিয়ে ২ উইকেট তুলে নেন মুস্তাফিজুর রহমান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 doorbin24.Com