Notice :
Welcome To Our Website...
বিজিবি-বিএসএফের ডিজি পর্যায়ের সম্মেলন শুরু

বিজিবি-বিএসএফের ডিজি পর্যায়ের সম্মেলন শুরু

দূরবীন নিউজ ডেস্ক : ঢাকায় বিজিবি-বিএসএফের ডিজি পর্যায়ের সীমান্ত সম্মেলন আনুষ্ঠানিকভাবে পিলখানা বিজিবি সদর দপ্তরের সম্মেলন কক্ষে শুরু হয়েছে। এই বৈঠকে সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোটায় এবং অস্ত্র ও মাদক পাচার বন্ধের বিষয়টি প্রাধান্য পাবে বলে জানায় বিজিবি।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে পিলখানা বিজিবি সদর দপ্তরের সম্মেলন কক্ষে ৪ দিনব্যাপী দুই দেশের সীমান্ত বৈঠক শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজিবি কর্মকর্তারা।

সম্মেলনে যোগদানের জন্য ভারতীয় বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ) মহাপরিচালক রাকেশ আস্থানার নেতৃত্বে ৬ সদস্যের প্রতিনিধিদল বুধবার পিলখানা বিজিবি সদর দপ্তরে এসে পৌঁছান।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) একজন কর্মকর্তা বলেন, সীমান্ত হত্যা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এ বছর আগস্ট পর্যন্ত বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে ৩৩ বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। এছাড়াও বৈঠকে অবৈধ অস্ত্র, মাদক এবং মানব পাচার বন্ধের ব্যাপারেও আলোচনা হবে। উভয় দেশের সীমান্ত ব্যবস্থাপনা আরও উন্নয়নের জন্য বৈঠকে আলোচনা হবে।

বিজিবি’র অপারেশন ডিরেক্টর লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়জুর রহমান বলেন, ‘বৈঠকে সীমান্ত হত্যা বন্ধের বিষয়টি প্রাধান্য পাবে’। বৈঠকে উভয় দেশের পারস্পরিক স্বার্থের পাশাপাশি দুই সীমান্ত বাহিনীর মধ্যে সম্পর্ক আরও উন্নয়নের উপায় নিয়ে আলোচনা করবে হবে বলেও জানান তিনি।

নয়াদিল্লী থেকে প্রাপ্ত প্রতিবেদনে দেখা গেছে, বিএসএফের পক্ষ হতে আলোচনায় গবাদি পশু পাচার, মুদ্রা ও মানব পাচার বিষয়ে আলোচনা হতে পারে।

এদিকে বিজিবি’র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয, আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সম্মেলনের যৌথ আলোচনার দলিল স্বাক্ষরের মধ্য দিয়ে সীমান্ত সম্মেলন শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। সম্মেলন শেষে বিএসএফ প্রতিনিধিদল ঢাকা ত্যাগ করবেন বলে জানানো হয়।

সম্মেলনে বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলামের নেতৃত্বে ১৩ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল অংশগ্রহণ করবেন। বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলে বিজিবি’র অতিরিক্ত মহাপরিচালকবৃন্দ ও বিজিবি সদর দপ্তরের সংশ্লিষ্ট অফিসারবৃন্দ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, যৌথ নদী কমিশন এবং ভুমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করবেন।

বিএসএফ মহাপরিচালক রাকেশ আস্থানার নেতৃত্বে ৬ সদস্যের ভারতের প্রতিনিধি দলে বিএসএফ সদর দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এবং ভারতের স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন।

এদিকে বুধবার বিএসএফ মহাপরিচালক রাকেশ আস্থানা ঢাকার তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরে পৌঁছলে বিজিবি ডিজি বিএসএফ ডিজিকে অভ্যর্থনা ও ফুল দিয়ে বরণ করে নেন এবং সেখান থেকে তাকে সঙ্গে নিয়ে পিলখানা বিজিবি সদর দপ্তরে আসেন।

এর আগে বিএসএফ মহাপরিচালকসহ ভারতীয় প্রতিনিধি দল সড়ক পথে আখাউড়া আইসিপি দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করলে তাদেরকে বিজিবি কর্মকর্তারা অভ্যর্থনা জানিয়ে সুলতানপুর ব্যাটালিয়নে যান। পরে সেখান থেকে তারা বিজিবি’র হেলিকপ্টার যোগে ঢাকার তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরে পৌঁছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 doorbin24.Com