Notice :
Welcome To Our Website...
সর্বশেষ সংবাদ
নাগরপুরে ৩ দিনব্যাপী ই-নামজারী ও ভূমি সেবা প্রশিক্ষণ শুরু অবশেষে টাঙ্গাইলে ৭ বছরের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিশুকে ধর্ষনের মামলায় গ্রেফতার মোহাম (৫০) আমাকে নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ ভিত্তিহীন: শিক্ষামন্ত্রী পুতিনের ওপর ব্যক্তিগত নিষেধাজ্ঞার হুমকি বাইডেনের রাশিয়া নাভালনিকে ‘সন্ত্রাসী ও চরমপন্থীদের’ তালিকাভুক্ত করেছে দখলমুক্ত করা হবে রাজধানীর সকল খাল: তাজুল ধর্মকে ব্যবহার করে বিএনপি কিন্তু ধর্মের জন্য কাজ করেঃ তথ্যমন্ত্রী বিএনপি’র রাজনীতিতে এখন ঘোর দুর্দিন চলছে : ওবায়দুল কাদের মেসি পোপের কাছ থেকে ছোট ক্লাবের জার্সি উপহার পেলেন আইসিসি ভারতকে জরিমানা, সঙ্গে পয়েন্টও কেটে নিল
নতুন বর্ষ উদযাপনে যা করতে বারণ

নতুন বর্ষ উদযাপনে যা করতে বারণ

থার্টিফার্স্ট নাইট উদযাপনে পুলিশের পক্ষ থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। করোনা মহামারীর শুরু থেকে যে কোনো উদযাপনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার যে কথা বলা হচ্ছে, নতুন বছরের প্রথম রাতকে কেন্দ্র করে একই নির্দেশনা থাকছে।

এ ছাড়া নিজস্ব সংস্কৃতি, মূল্যবোধ ঐতিহ্য বিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হওয়া, পটকা, আতশবাজি ফোটানো, অশোভন আচরণ, বেপরোয়া গাড়ি ও মোটরসাইকেল চালানোর বিষয়ে কড়াকড়িও আগের মতোই থাকবে।

ঢাকা মহানগর পুলিশ ৩১ ডিসেম্বর রাতে পটকাবাজি, আতশবাজি, বেপরোয়া গাড়ি, মোটরসাইকেল চালনাসহ যে কোনো ধরনের অশোভন আচরণ এবং বেআইনি কার্যকলাপ থেকে বিরত থাকতে সবাইকে অনুরোধ জানিয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে-

•  ঢাকা মহানগরের সার্বিক নিরাপত্তা ও আইনশৃঙ্খলার স্বার্থে রাস্তার মোড়, ফ্লাইওভার, রাস্তায়, ভবনের ছাদে এবং প্রকাশ্য স্থানে কোনো ধরনের জমায়েত, সমাবেশ, উৎসব করা যাবে না।

•  উন্মুক্ত স্থানে নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে কোনো ধরনের অনুষ্ঠান বা সমবেত হওয়া যাবে না বা নাচ, গান ও কোনো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা যাবে না।

•  কোথাও কোনো ধরনের আতশবাজি বা পটকা ফাটানো যাবে না।

•  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সন্ধ্যা ৬টার পর বহিরাগত কোনো ব্যক্তি বা যানবাহন প্রবেশ করতে পারবে না।

•  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক এলাকায় বসবাসরত শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের গাড়ি নির্ধারিত সময়ের পর পরিচয় প্রদান সাপেক্ষে শাহবাগ ক্রসিং দিয়ে প্রবেশ করতে পারবে। তবে পরিচয় প্রদান সাপেক্ষে নীলক্ষেত ক্রসিং দিয়ে পায়ে হেঁটে প্রবেশ করতে পারবে।

•  গুলশান ও বনানী এলাকায় রাত ৮টার পর বহিরাগতরা প্রবেশ করতে পারবে না। তবে ওই এলাকায় বসবাসরত নাগরিকরা নির্ধারিত সময়ের পর কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউ (কাকলী ক্রসিং) এবং মহাখালী আমতলী ক্রসিং দিয়ে পরিচয় দিয়ে প্রবেশ করতে পারবে।

•  একইভাবে উপর্যুক্ত সময়ে সার্বিক নিরাপত্তার স্বার্থে গুলশান, বনানী, বারিধারা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক এলাকায় যেসব নাগরিক বসবাস করেন না, তাদের বর্ণিত এলাকায় যাওয়ার ক্ষেত্রে নিরূৎসাহিত করা হচ্ছে।

•  রাত ৮টার পর হাতিরঝিল এলাকায় কাউকে অবস্থান করতে দেয়া হবে না।

•  গুলশান, বনানী ও বারিধারা এলাকায় বসবাসরতদের ৩১ ডিসেম্বর রাত ৮টার মধ্যে স্ব-স্ব এলাকায় প্রত্যাবর্তনের জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।

•  ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টার পর ঢাকা মহানগরীর কোনো বার খোলা রাখা যাবে না।

•  রাত ১০টার পর সব ফাস্টফুড দোকান বন্ধ থাকবে।

•  সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত আকারে আবাসিক হোটেলগুলোতে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠান করতে পারবে। তবে কোনো ক্রমেই ডিজে পার্টি করতে দেওয়া যাবে না।

•  ইংরেজি নববর্ষের প্রাক্কালে ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে ১ জানুয়ারি ভোর ৬টা পর্যন্ত ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন আবাসিক হোটেল, রেস্তোরাঁ, জনসমাবেশ ও উৎসবস্থলে সব ধরনের লাইসেন্সকৃত আগ্নেয়াস্ত্র বহন করতে পারবে না।

এসব নির্দেশনা লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সতর্ক করেছে পুলিশ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 doorbin24.Com