Notice :
Welcome To Our Website...
দীঘির বিরুদ্ধে কোটি টাকার মামলা

দীঘির বিরুদ্ধে কোটি টাকার মামলা

শুরুর আগেই ধাক্কা খেলেন অভিনেত্রী প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। দীঘির বিরুদ্ধে এক কোটি টাকার ক্ষতিপূরণের মামলা করেছেন প্রযোজক সিমি ইসলাম। একইসঙ্গে দীঘি, তার বাবা সুব্রত ও মামার নামে পৃথক আরেকটি মানহানির মামলা করেছেন নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টু।

ছবির নির্মাতা ও প্রযোজক বুধবার (১০ মার্চ) দুপুরে মহানগর দায়রা জজ আদালতে এ মামলা করেন।

ঘটনার সূত্রপাত সম্প্রতি উন্মুক্ত হওয়া ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমাটির ট্রেলারকে ঘিরে। এটি প্রকাশ হলে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে। এতে বিব্রত হন দীঘিও। এক সাক্ষাৎকারে দীঘি বলেন, ‘সিনেমাটি বেশ মানহীন। এটি চলবে না।’ ওই মন্তব্যের জন্যই দীঘির বিরুদ্ধে ১ কোটি টাকার মানহানি মামলা করবেন বলে ঘোষণা দেন ছবিটির পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। এবার সত্যি সত্যি মামলা ঠুকে দিলেন তিনি!

বুধবার (১০ মার্চ) দুপুরে গণমাধ্যমকে ঝন্টু বলেন, ‘আমার সিনেমার যে সংখ্যা ও সফলতা। তার সঙ্গে এই উপমহাদেশের আর কারো তুলনা হয় না। দীঘি ও তার পরিবার আমার যে মানহানি করেছে সেটির মূল্য ১০ কোটিরও বেশি। যদিও আমি এক কোটি টাকার মামলা করেছি।’

পরিচালকের কথায়, ‘ছবি মুক্তির কয়েকদিন আগে যখন নায়িকাই বলে সেটি চলবে না, তখন মানুষ সেই ছবি দেখতে যাবে কেন? মুক্তির আগে চলবে না বললে তো সে (দীঘি) পরিচালক এবং প্রযোজকদের হুমকি দিলো, মানহানি ঘটালো। এটা না থামাতে পারলে কালচার হয়ে যাবে। অন্য নায়ক-নায়িকারাও বলবে। সব প্রযোজক-পরিচালকরা হুমকির মুখে পড়বে।’

অবশ্য মামলার হুমকির পর মঙ্গলবার (৯ মার্চ) নির্মাতা ঝন্টুকে ‘স্যরি’ও বলেছিলেন দীঘি, ‘ঝন্টু আংকেল আমার ওপর কেন এত রাগ করেছেন, সেটা আমি জানি না। আমি এমন কোনও স্ট্যাটমেন্ট বা মন্তব্য করিনি যে, উনি আমার নামে মামলা করতে চাইবেন। উনি আমার গুরুজন। আমার কাছে অনেক সম্মানের একজন মানুষ। আমি যদি কোনোভাবে, কোনও কথায় উনাকে দুঃখ দিয়ে থাকি তাহলে তাকে ‘স্যরি’ বলছি।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 doorbin24.Com