Notice :
Welcome To Our Website...
ট্রাম্পকে দ্বিতীয়বার ইমপিচ :গণতন্ত্রের কালো অধ্যায় ক্যাপিটল হিল পাহাড়া দিচ্ছে ন্যাশনাল গার্ড ,ওয়াশিংটনে সতর্কতা

ট্রাম্পকে দ্বিতীয়বার ইমপিচ :গণতন্ত্রের কালো অধ্যায় ক্যাপিটল হিল পাহাড়া দিচ্ছে ন্যাশনাল গার্ড ,ওয়াশিংটনে সতর্কতা

মোশাররফ হোসেন : রাষ্টপতি ট্রাম্পকে দ্বিতীয়বারের মত ইমপিচ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদ । ১৯ জানুয়ারি নিম্ন পরিষদের সিদ্ধান্ত উচ্চ পরিষদে পৌছাবে । এ দিনটি হবে সাংবিধানিকভাবে ̧রুত্বপূর্ণ দিন । সিনেটে জন ̧রুত্বপূর্ণ বিষয় বিবেচনায় নিয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত হতে পারে । এখানে ভোটভুটি হলে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে শিক্ষামূলক ব্যবস্থা গৃহীত হবার সম্ভাবনা রয়েছে বলে সিএনএন ও এবিসির রিপোর্টে অভিমত জ্ঞাপন করা হয়েছে ।

এখানে উল্লেখ্য যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে ইতিপূর্বে ১৮৬৮সালে অ্যান্ড্রু জনসন ,১৯৯৯সালে উইলিয়াম জে ক্লিনটন একবার করে ইমপিচড হয়েিেছলেন । আর ডোনাল্ড ট্রাম্প একই মেয়াদে দু’বার ইমপিচড হলেন ।

গত ৬ জানুয়ারি রিপাবলিকান পার্টির উগ্র সমথর্করা ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল হিলে কংগ্রেসের নিম্ন পরিষদের সভা চলাকালীন সময়ে সশস্র অবস্থায় ঢুকে ভাংচুর ও আসবাবপত্র তছনছ করার ঘটনাকে “গণতন্ত্রের ইতিহাসে কালো অধ্যয় ” হিসেবে চিহ্নিত করেছেন বিশ্বের গণতান্ত্রিক দেশসমুহ । গণতন্ত্রের নেতৃত্ব থাকা যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এমন ঘটনা আর ঘটেনি । রাষ্ট্রপতি ট্রাম্প এর আগে নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখান করে রিপাবলিকান পার্টির সদস্যদের জোরালো প্রতিবাদের জন্য ক্যাপিটাল হিলে সমাবেশ করার আহ্বান জানিয়েছিলেন ।

শুধু কি তাই। কংগ্রেসের সভায় উপস্থিত সদস্যদের নিরাপত্তা দিতে গিয়ে ক্যাপিটাল হিলের সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস অতিরি৩ পুলিশ ডাকতে বাধ্য হন । কংগ্রেস সদস্যদের রক্ষা করার জন্য সভাকক্ষ থেকে ভিন্ন পথে সরিয়ে নিতে দেখা যায়।ততক্ষনে রিপাবলিকান সদস্যরা জানালা ভেংগে ভেতরে ঢুকে বিভিন্ন কক্ষে পতাকা উড়িয়ে বিজয়চিহ্ন দেখিয়েছে। অথচ এত গুরুত্বপূর্ণ সভাস্থলে সশস্র একটি সমাবেশ এফবিআইসহ যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা বিভাগ জানতোনা কী হতে যাচ্ছে ? এটা বিশ্বাসযোগ ̈ !

বরাত ভাল কোন সদস্য হতাহত হননি । এখানে পুলিশের সংগে সংঘর্ষে ৪ জন নিহত হয়েছে । আহত হয়েছেন শতাধিক । দুইজন পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন ।

স্পিকার পালোসি জানিয়েছেন সংবিধান ও আইন অনুসরন করে কংগ্রেস তাদের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ২৩২ ও ১৯৭ ভোটের ব্যবধানে । এখানে ডেমোক্রাট ২২২ সদস্য ছাড়াও ১০ জন রিপাবলিকান সদস্য ট্রাম্পকে ইমপিচ করার পক্ষে ভোট দেন । যা বিরল ঘটনা ।তবে যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তাবাহিনী এখন ভিডিও ফুটেজ দেখে সন্ত্রাসি কর্মকান্ডে জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করছে ।

ওয়াশিংটনে কঠোর নিরাপত্তা :অপরদিকে আগামী ২০ জানুয়ারি নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন শপথ গ্রহন করবেন । এজন্য ক্যাপিটল হিলের নিরাপত্তা বিধানে ওহাইও থেকে আসা ন্যাশনাল গার্ড অবস্থান গ্রহন করেছেন । জো বাইেেডন এর শপথগ্রহন অনুষ্ঠান এর জন্য ওয়শিংটন ডিসির নিরাপত্তা দেবে ২০ হাজার ন্যাশনাল গার্ড । সমগ্র যুক্তরাষ্ট্রে জুড়ে নিরাপত্তা বৃদ্ধি করা হয়েছে বলে সিএনএন ও এবিসি টেলিভিশন জানিয়েছে । ওয়াশিংটন ডিসি অজ্ঞাত মিলিশিয়ার লক্ষ্য হবার খবর জানার পর যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা বৃিদ্ধ করা হয়েছে ।

যৌথ বাহিনীর বিবৃতি

যৌথবাহিনী প্রধানদের বিবৃতি : এবিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সেনা ,নৌ ,বিমান , স্পেস,মেরিন, ন্যাশনাল গার্ডের যৌথবাহিনীর ৮জন জেনারেল যৌথ বিবৃতি দিয়ে বলেছে , যে কোন মূল্যে তারা দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষা, জনগনের জীবন বাচানো ,সম্পদ রক্ষা করবেন । তারা সংবিধান অনুযায়ী দেশের বেসামরিক নেতৃত্বের¡ আইনসম্মত স্দ্ধিান্ত বাস্তবায়ন করবেন । তাদের সকল কাজে সহায়তা করবেন ।

তবে নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে ও করোনার সংক্রমনরোধের বিষয়টি ভেবে বড় পর্দায় সমবেত হয়ে শপথগ্রহন অনুষ্ঠান প্রত্যক্ষ করাকে নিরূৎসাহিত করা হয়েছে বলে হোয়াইট হাউস প্রশাসণ জানিয়েছে । ডেলাওয়ারেতে বাইডেনের অফিস থেকে এ বিষয়ে ঘোষনার অপেক্ষায় রয়েছে ডেমোক্রাট পার্টির সদস্যরা । তবে শপথগ্রহন অনুষ্ঠানে আনন্দ উৎসবের প্রস্তুতি আছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 doorbin24.Com