Notice :
Welcome To Our Website...
টানা তৃতীয়বারের মত লিগ ওয়ানের সেরা খেলোয়াড় মনোনীত হলেন এমবাপ্পে

টানা তৃতীয়বারের মত লিগ ওয়ানের সেরা খেলোয়াড় মনোনীত হলেন এমবাপ্পে

ক্যারিয়ারে টানা তৃতীয়বারের মত লিগ ওয়ানের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন প্যারিস সেইন্ট জামেইর (পিএসজি) স্ট্রাইকার কিলিয়ান এমবাপ্পে।
আগামী মাসে পিএসরি সাথে এমবাপ্পের বর্তমান চুক্তি মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। পিএসজি ক্যারিয়ার শেষে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেবার সম্ভাবনাই বেশী বলে ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। এমবাপ্পে নিজেই এ ব্যপারে ইঙ্গিত দিয়েছেন।
ফরাসী লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নদের হয়ে এমবাপ্পে এবারের মৌসুমে সর্বোচ্চ ২৫টি ও সব মিলিয়ে করেছেন ৩৬টি গোল। প্রতি বছর ফ্রান্সের শীর্ষ দুই বিভাগের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার প্রদান করে থাকে ন্যাশনাল ইউনিয়ন অব প্রফেশনার ফুটবল প্লেয়ার্স (ইউএনএফপি)। গতকাল আনুষ্ঠানিক ভাবে এমবাপ্পের হাতে এই পুরস্কার তুলে দেয়া হয়েছে।
২৩ বছর বয়সী এই ফরাসী তরুণ গত বছরও এই পুরস্কার জয় করেছিলেন। ২০১৯ সালে ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ৪২ গোল করে প্রথমবার এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন। এমবাপ্পে বলেন, ‘এখানে আসতে পারাটা সবসময়ই সম্মানের। টানা তৃতীবারের মত এই ধরনের একটি পুরস্কার জয় অবশ্যই বিশেষ কিছু। অন্য দুইবারের তুলনায় এবারের পুরস্কারটা আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছে।’
২০২০ সালে করোনা মহামারীর কারনে ১০ ম্যাচ হাতে রেখেই মৌসুম শেষ হয়ে যাওয়া এই পুরস্কার প্রদান করা হয়নি।
পিএসজি সহজেই লিগ শিরোপা জয় করলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপার অপেক্ষা আরো একবার বেড়েছে। এবার রিয়াল মাদ্রিদের কাছে শেষ ১৬ থেকেই বিদায় নিতে হয়েছে। অথচ প্রথম রাউন্ডে এমবাপ্পের জোড়া গোলে ২-০ গোলে এগিয়ে থাকলেও দ্বিতীয় রাউন্ডে করিম বেনজেমার হ্যাটট্রিকের কাছে পরাস্ত হতে হয়েছে পিএসজিকে। সাত বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে জাতীয় দলে ফিরে আসার পর বেনজেমার সাথে এমবাপ্পে জুটি ফ্রান্সের আক্রনমনভাগকে সমৃদ্ধ করেছে। উভয় খেলোয়াড়ই গত বছর লেস ব্লুজদের হয়ে নিজেদের প্রমান করেছেন। স্পেনের বিপক্ষে নেশন্স লিগের ফাইনালে বেনজেমার দুর্দান্ত গোলের পর এমবাপ্পে করেছেন জয়সূচক গোল।
পাঁচ বছর আগে মোনাকো থেকে ১৮০ মিলিয়ন ইউরোতে পিএসজিতে যোগ দেবার পর থেকে এমবাপ্পে এ পর্যন্ত করেছেন ১৬৮ গোল। ক্লাব ইতিহাসে এডিনসন কাভানির সর্বোচ্চ ২০০ গোলের পর যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। ১৫৬ গোল করে এই তালিকায় তৃতীয় স্থানে আছেন জøাটান ইব্রাহিমোভিচ।
কিন্তু ট্রান্সফার মার্কেটে বিপুল পরিমান অর্থ ব্যয় করেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ব্যর্থতা থেকে কোনভাবেই বের হয়ে আসতে পরছেনা পিএসজি।
এ মৌসুমের সেরা কোচ নির্বাচিত হয়েছেন রেনের ব্রুনো জেনেসিও। মৌসুমের শুরুতে সাবেক এই লিঁও কোচ সমালোচিত হলেও নিজের নীতিতে অটল থেকে ঠিকই দলকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন। লিগ টেবিলের চতুর্থ স্থানে থাকা রেনে ফ্রান্স ফুটবলের অন্যতম সেরা আক্রমনভাগ নিয়ে বেশ কিছু ম্যাচে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছে। ৩৭ ম্যাচে তারা করেছে ৮০টি গোল, যা সর্বোচ্চ গোল করা পিএসজির তুলনায় মাত্র পাঁচটি কম।
সেরা গোলরক্ষক ও সেরা ডিফেন্ডার নির্বাচিত হয়েছেন যথাক্রমে পিএসজির গিয়ানলুইগি ডোনারুমা ও মার্সেই র ২১ বছর বয়সী ডিফেন্ডার উইলিয়াম সালিবা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 doorbin24.Com