Notice :
Welcome To Our Website...
অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিলেন বরিস

অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিলেন বরিস

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার উদ্ভাবিত করোনাভাইরাসের টিকা নিয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। গতকাল শুক্রবার (১৯ মার্চ) তিনি লন্ডনের সেইন্ট থমাস হাসপাতালে টিকা নেন, যেখানে তিনি গত বছর করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা নিয়েছিলেন। ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সম্প্রতি এই টিকা গ্রহণের পর বেশ কয়েকজনের দেহে রক্তজমাট বাঁধার খবরে এক ডজনেরও বেশি রাষ্ট্রে এর ব্যবহার স্থগিত ঘোষণা করা হয়। এরপর বিষয়টি নিয়ে পর্যবেক্ষণে নামে দ্য ইউরোপিয়ান মেডিসিন এজেন্সি (ইএমএ) এর আওতাধীন সেফটি কমিটি। পর্যবেক্ষণ শেষে গত বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) আশার বাণী শোনালো তারা।

ইএমএ এর পরিচালক ইমার কুক জানান, অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিরাপদ। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে এটি মানুষকে রক্ষা করতে সক্ষম। এই টিকার উপকারিতা অনেক।

তবে ইএমএ-এর ঘোষণার আগেই টিকা নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন বরিস। করোনার এই টিকা নিয়ে জনমনে সবরকম শঙ্কা দূর করতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। গত বুধবার ব্রিটিশ পার্লামেন্টে তিনি বলেন, ‘আমি খুব শিগগিরই করোনার টিকা নেবো। এটা নিশ্চিতভাবেই অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা হবে। টিকা নেওয়ার সুযোগ পেয়ে আমি খুবই আনন্দিত।’

শুক্রবার টিকা নেওয়ার পর তিনি বলেন, ‘প্রত্যেকেই যখনই আপনি টিকার জন্য ম্যাসেজ পাবেন, দয়া করে টিকাকেন্দ্রে যান এবং এটা গ্রহণ করুন। এটি আপনার জন্য, আপনার পরিবারের জন্য তথা সবার জন্য মঙ্গলজনক। শুধুমাত্র আমার কথা শুনতে হবে তা নয়। বিজ্ঞানীদের কথা শুনুন। ঝুঁকি হলো করোনাভাইরাস। এখন টিকা নেয়ায় বুদ্ধিমানের কাজ।’

এদিকে, ইএমএ-এর ঘোষণার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই জার্মানি ঘোষণা দিয়েছে, তারা শুক্রবার সকাল থেকেই অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকাদান কর্মসূচি আবারও শুরু করেছে।

ফ্রান্সও বলেছে একই কথা। ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জ্যঁ ক্যাসেক্স বলেছেন, তিনি নিজেই শুক্রবার বিকেলে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিতে পারেন।

ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি বলেছেন, ইতালি অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকাদান আবারও শুরু করবে। তার সরকার দেশটির যত বেশি সম্ভব মানুষকে দ্রুততম সময়ে টিকাদানে অগ্রাধিকার দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2017 doorbin24.Com